• LOGIN
  • No products in the cart.

ডিজিটাল মার্কেটিং এর পিছনের গল্প

হবার কথা ছিল  বিজ্ঞানী, হয়েছেন ডিজিটাল মার্কেটার। মোঃ নাজমুল হোসেন একজন উদ্যোক্তা, লেখক ও পাবলিক স্পিকার। দীর্ঘ ১৩ বছরের ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যারিয়ারে তিনি পেয়েছেন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি । কাজ করার সুযোগ পেয়েছেন বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস আপওয়ার্ক এর ব্র্যান্ড এ্যাম্বাসেডর হিসেবে। কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ২০১৪ সালে জাতীয় ক্যাটেগরিতে অর্জন করেন বেসিস আউটসোর্সিং এ্যাওয়ার্ড। আমেরিকা থেকে প্রকাশিত ইল্যান্স-ওডেস্ক (বর্তমান আপওয়ার্ক) এ্যানুয়াল ইম্প্যাক্ট রিপোর্টে উঠে এসেছে তার সফলতার গল্প এবং ফিচারড হয়েছেন আপওয়ার্কের ফেইসবুক পেইজে।

বর্তমানে কাজ করছেন দেশের প্রথম সারির ডেটাভিত্তিক ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি টি৩ কমিউনিকেশনস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে এবং একই সাথে প্রতিষ্ঠা করেছেন কমিউনিটি ভিত্তিক ইন্টার‍্যাকটিভ লার্নিং প্লাটফর্ম রেড বাফেলোজ। পড়াশোনা করেছেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিনে এবং পরবর্তীতে মাস্টার্স করেছেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেভেলপমেন্ট স্ট্যাডিজ ডিসিপ্লিনে। ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে নিয়মিত পড়াশোনা ও লেখালেখির পাশাপাশি তিনি ডেটা ভিত্তিক ডিজিটাল মার্কেটিং বিষয়ে পিএচডি করার প্রস্তুতি গ্রহণ করছেন।

লাইভ ইন্টারভিউতে যেসকল টপিক কভার করা হবে

– ডিজিটাল মার্কেটার হিসেবে এই অবস্থানে আসার পেছনের গল্পটা শুনতে চাচ্ছিলাম 

-১৩ বছর কাজ করলেন বিভিন্ন প্লাটফর্মে, কোন সেক্টর নিউবি দের জন্য সবচে আশাদায়ক?

– বেসিসের এই “বাংলাদেশের সেরা ফ্রিল্যান্সার” উক্তিটা অর্জনের জন্য কতটা শ্রম দিতে হয়েছিল?

-আপওয়ার্কের ব্র্যান্ড এম্বাসেডর হবার পেছনের গল্পটা কি ? অভিজ্ঞতাটা কেমন ছিলো ?

– ট্রেইনিং সেক্টরে সফলতার মূল কারন কি ?

-একজন শূন্য থেকে শুরু করা মানুষ ডিজিটাল মার্কেটিং এর জন্য কিভাবে এগোতে পারে ?

রেজিস্ট্রেশন করুন

৩ মে, রবিবার রাত ৯টায় আমাদের ফেইসবুক পেইজ থেকে নাজমুল ভাইয়ের সাথে আলাপ হবে তাঁর পুরো জার্নি নিয়ে, আর সাথে ডাটা ড্রাইভেন ডিজিটাল মার্কেটিং-এ ক্যারিয়ার গড়ার টিপস তো থাকবেই!

May 3, 2020
top
X