• LOGIN
  • No products in the cart.

কেন ফেইসবুক এড জরুরি?

ফেইসবুকে এই মূহুর্তে ১ বিলিয়ন অর্থাৎ ১০০ কোটির উপরে ইউজার আছে। এরমধ্যে বাংলাদেশ থেকে আছে ৩ থেকে সাড়ে ৩ কোটি ইউজার। আর এই ইউজারদের প্রায় অর্ধেক অর্থাৎ ১ থেকে দেড় কোটি ইউজার আছে ঢাকার মধ্যেই। আমরা যদি আরো গভীরে যাই তাহলে ঢাকার ফেইসবুক ইউজারদের মধ্যে ৯ লাখ ৩০ হাজার আছে গুলশান এড়িয়াতে।

তারমানে হচ্ছে আপনার বিজনেস যেধরণেরই হোক না কেন, ফেইসবুকের মাধ্যমে আপনি টার্গেট অডিয়েন্স এর কাছে আপনার ম্যাসেজ পৌঁছে দিতে পারবেন এবং খুবই অল্প খরচে।

 

চিন্তা করে দেখুন ১০ হাজার লিফলেট আপনি প্রিন্ট করে বিলি করতে আপনার প্রায় ২৫ হাজার টাকা খরচ হয়ে যাবে। আর সবচাইতে বেশী যেটা ফ্রাস্টট্রেটিং সেটা হচ্ছে আপনার লিফলেট দেখে কতজন কাস্টমারে কনভার্ট হয়েছে তা আপনি কখনোই জানতে পারবেন না। এই লিফলেট বাবদ বিজ্ঞপনের খরচের বিপরীতে রেভ্যিনু কত তা কিন্তু আপনি কখনোই ক্যালকুলেট করতে পারবেন না। কিন্তু ফেইসবুক বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে এই ক্যালকুলেশনটি করার সুযোগ আছে আপনার।

ধরুন আপনার ছোট খাটো গ্রোসারি ইকমার্স আছে যেখান থেকে আপনার টার্গেট অডিয়েন্স অনলাইনে অর্ডার করতে পারে। এখন আপনি চাইলে ফেইসবুকে কনভার্শন ক্যাম্পেইন চালাতে পারেন, যার মাধ্যমে ফেইসবুক বিজ্ঞাপন দেখে যারা আপনার ইকমার্স সাইট থেকে অর্ডার প্লেস করবে তাদের পিছনে আপনার কত টাকা খরচ হয়েছে আপনি তা সহজেই জানতে পারবেন। তারমানে হচ্ছে আপনাকে বিজনেস ডিসিশন নিতে অপেক্ষা করা লাগবে না। আপনি ভালোভাবে একটা ফেইসবুক এড ক্যাম্পেইন থেকেই কোন পণ্যের চাহিদা আছে, কোন পণ্যে ছাড় দেওয়া লাগবে সেই ডিসিশনগুলো সহজে নিতে পারবেন।

এর পাশাপাশি ফেইসবুক এডের একটা চমৎকার ফিচার হচ্ছে ‘Retargeting’ ও ‘LookAlike’ অপশন।

 

রিটার্গেটিং মানে হচ্ছে আপনি পুনরায় যদি একজন টার্গেট অডিয়েন্সকে এড দেখাতে চান। ধরুন আপনার ২৫ হাজার লিফলেট বিলি থেকে ২০০০ মানুষ ইন্টারেস্টেড হয়েছিল প্রডাক্টটি কেনার জন্য, হয়তো পকেটে করেও বাসায় নিয়ে গিয়েছে। কিন্তু দুইদিনের মধ্যে সেই লিফলেট হারিয়ে গেল, লিফলেটে হারানোর সাথে সাথে আপনি কিন্তু একজন পটেনশিয়াল টার্গেট অডিয়েন্সও হারিয়ে ফেললেন। কারণ আপনি তাকে আর খুঁজে বের করে আপনার বিজ্ঞাপন দেখাতে পারবেন না।

ফেইসবুক এই সমস্যার সলিউশন নিয়ে এসেছে ‘পিক্সেল’ এর মাধ্যমে। অর্থাৎ আপনি যদি ফেইসবুক এডের ‘পিক্সেল’ নামক ট্র্যাকিং কোড আপনার ওয়েবসাইট বা অ্যাপে সঠিকভাবে বসিয়ে দেন তাহলে যখনই কোন ইউজার আপনার ওয়েবসাইট বা অ্যাপ ভিজিট করবে তাকেই আপনি পরবর্তী সময়ে এড দেখাতে পারবেন। এইজন্যই এমাজন, আলিবাবাতে আমরা যখন কোনো পণ্য ব্রাউজ করে ফেইসবুকে আসি তখন সেই পণ্যের এড আমরা দেখি।

আবার এই ট্র্যাকিং কোড বসানোর মাধ্যমেই আপনি চাইলে ‘LookAlike’ অডিয়েন্স ক্রিয়েট করতে পারেন। অর্থাৎ যেই লোকগুলো আপনার লিফলেট বাসায় নিয়ে গিয়েছিল এবং পরবর্তীতে আপনার পণ্য কিনেছে তাদের মতো আরো কতজন আছে পুরো বাংলাদেশে/ঢাকায়/গুলশানে, বা আপনার টার্গেট করা লোকেশন, তাদেরকেও আপনি এড দেখানোর সুযোগ পাবেন ফেইসবুক এডের মাধ্যমে। লিফলেটে যেহেতু ট্র্যাকিং কোড বসাতে পারবেন না তাই ফেইসবুক এড আপনার বিজনেসের জন্য এইমূহুর্তে সবচাইতে বেশী গুরুত্বপূর্ণ। আর সব থেকে ইন্টারেস্টিং বিষয় হচ্ছে আপনি চাইলে ১ ডলার বাজেট নিয়ে ফেইসবুকে বিজ্ঞপন দিতে পারেন। তারমানে টার্গেট অডিয়েন্স, বাজেট সবকিছু আপনার কন্ট্রোলেই থাকবে!

ফেইসবুক এডের উপর এই কোর্স ভালোভাবে শেষ করার পর আশা করি ফেইসবুক এড নিয়ে আপনার আর কোনো প্রকার কনফিউশন থাকবে না। আপনি আপনার নিজের প্রতিষ্ঠান বা আপনার ক্লায়েন্টের জন্য পরিপূর্ণ নলেজ নিয়ে কস্ট ইফেক্টিভভাবে ফেইসবুকে বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন।

SEE ALL Add a note
YOU
Add your Comment
 
top
X